জেলার প্রাক্তন পুলিস সুপার ভারতী ঘোষের মামলায় সি আই ডি দ্বারা সিজ করা সোনা ও টাকা এসে পৌঁছাল ঘাটাল আদালতে।
ভারতীর বিরুদ্ধে বিভিন্ন বিষয়ে অভিযোগ তুলেছিলেন পশ্চিম মেদিনীপুরের স্বর্ণ ব্যবসায়ী চন্দন মাজি। আদালতে মামলা দায়েরের পরই নড়েচড়ে বসে সিআইডি। এই বছরই শুক্রবার ২ ফেব্রুয়ারি একযোগে ভারতী ঘোষের কলকাতা, পশ্চিম মেদিনীপুর, সোনারপুরের বাড়িতে তল্লাশি চালানো হয়েছিল। তল্লাশি চালানো হয়েছিল নাকতলায় ভারতী ঘোষের স্বামীর বাড়িতেও। বিভিন্ন তল্লাসিতে উদ্ধার হয় বিপুল পরিমাণে নগদ, সোনা ও সম্পত্তির নথি।

সেই টাকা ও সোনাই আজ ঘাটাল আদালতে এল। নয় টি বড় বড় ট্রাঙ্কে করে সেই টাকা ও সোনা আনা হয়েছে। ৫টি গণক যন্ত্রে এই টাকা গণনা চলছে। সোনা ওজনের জন্য আনা হয়েছে একটি ওজন মেশিন। আর তা দেখতে আদালত চত্ত্বরে মানুষের ভিড় চোখে পড়ার মত।

Recommend to friends
  • gplus
  • pinterest

About the Author

Leave a comment