সালিশি সভার তৃণমূল মোড়লদের নাম প্রকাশ্যে,বিচার পাবে মণিদীপা?

নিজস্ব সংবাদদাতা: সালিশি সভার অপমান থেকে আত্মঘাতী তরুণীকে প্ররোচনা দেবার অভিযোগে গ্রেপ্তার হয়েছে তরুণীর কাকিমা। দাসপুর থানার শৌলান গ্রামের তৃণমূলের পার্টি অফিসে বসা ওই সালিশি সভার সব মোড়লকে গ্রেপ্তারের দাবিতে সোচ্চার হয়েছেন ঘাটাল মহকুমার মানুষ। মোড়লরা তৃনমূলের সমর্থক। তাই রাজনৈতিক রং তো আছেই। দল কি মোড়লদের পাশে আছে? বিরোধী দল বিজেপি এই সালিশির বিষয়টি কিভাবে দেখছে? সব প্রশ্নের উত্তর পাবেন। তার আগে বলি, মোড়লদের নাম প্রকাশ্যে এসেছে। মণিদীপার মা সংবাদ মাধ্যমকে জানিয়েছেন, ২৯ জুনের সেই সালিশি সভায় মোড়ল হিসেবে কারা উপস্থিত ছিল। মা আরও জানিয়েছেন, সেদিনের একপেশে বিচার কেমন করে আঘাত হেনেছিল মণিদীপার মনে। ঘটনা ছিল এরকম: বন্ধুর সঙ্গে প্রেমের মিথ্যা বদনাম দিয়ে কাকিমা ঝুমা মণ্ডল গালাগালি দিলে, তা সহ্য করতে না পেরে ধস্তাধস্তি হয় সদ্য উচ্চ মাধ্যমিক পাশ করা বছর আঠারোর মণিদীপার সঙ্গে। মণিদীপার মাকেও অকথ্য ভাষায় গালাগালি করে ঝুমা। সালিশি সভার মণিদীপার ওপর মিথ্যা বদনামের বিচার হয়নি, বরং মণিদীপাকে কাকিমার কাছে পায়ে ধরে ক্ষমা চাইতে বাধ্য করে ওই মোড়লরা। অপমানের জ্বালায় আর বাড়ি ফেরেনি মণিদীপা। পরের দিন সকালে পাশের গ্রামের মাঠের ধারের একটি গাছ থেকে ৩০ জুন ঝুলন্ত দেহ উদ্ধার হয় মণিদীপার।দাসপুরের শৌলানের মণিদীপার মৃত্যু আত্মহত্যা নয়, বরং সালিশি সভার প্ররোচনার জেরে পরিকল্পিত খুন, এমনটাই দাবি তুলে সালিশি সভার সবাইকে গ্রেপ্তারের দাবি জানালেন বিজেপির ঘাটাল সাংগঠনিক জেলার সভাপতি তন্ময় দাস। কি বললেন তিনি শুনে নিন।

অপরদিকে তৃণমূল নেতা তথা বিধায়ক অজিত মাইতিও এই সালিশি সভার বিষয়টি সমর্থন করেননি। সালিশি সভার মোড়লদের সবাইকে যেন উপযুক্ত শাস্তির ব্যবস্থা প্রশাসন করে সেই আবেদন রাখেন তিনি। মহকুমার শুভবুদ্ধি সম্পন্ন মানুষ চান, এই মোড়লদের উপযুক্ত শাস্তির ব্যবস্থা যেন প্রশাসন করে। মানুষের দাবি এমন শাস্তির ব্যবস্থা করা হোক যাতে শাস্তির ভয়ে এই মধ্যযুগীয় মোড়লপনা বন্ধ হয়। কাকিমা গ্রেপ্তার হলেও প্রশাসন মোড়লদের প্রতি কি পদক্ষেপ নেয় মহকুমার মানুষ সেদিকে তাকিয়ে রয়েছে। একমাত্র প্রশাসনের কঠোর এবং দৃষ্টান্ত মূলক পদক্ষেপই পারে মোড়লপনাকে সমূলে উৎপাটন করতে।

ঘাটাল মহকুমার সমস্ত আপডেট তে যুক্ত হন আমাদের সাথে!

‘স্থানীয় সংবাদ’ •ঘাটাল •পশ্চিম মেদিনীপুর-৭২১২১২ •ইমেল: [email protected] •হোয়াটসঅ্যাপ: 9933998177/9732738015/9932953367/9647180572/9434243732 আমাদের এই নিউজ পোর্টালটি ছাড়াও ‘স্থানীয় সংবাদ’ নামে একটি সংবাদপত্র, MyGhatalমোবাইল অ্যাপ এবং https://www.youtube.com/SthaniyaSambad ইউটিউব চ্যানেল রয়েছে।