আবাস যোজনার বাড়ি পাচ্ছেন কারা? গরমিল?

নিজস্ব সংবাদদাতা, স্থানীয় সংবাদ, ঘাটাল: সঠিক মানুষের হাতে আবাস যোজনার বাড়ি তুলে দিতেই জেলা শাসকের নির্দেশে সকাল সকাল গ্রামে গ্রামে ঘুরছেন বিডিওরা। আবাস যোজনায় তালিকাভুক্ত উপভোক্তাদের বাড়ি বাড়ি গিয়ে তদন্ত শুরু করল জেলা প্রশাসন। জেলা শাসকের নির্দেশে গ্রাম পঞ্চায়েত ব্লক স্তরের অফিসারেরা উপভোক্তাদের বাড়ি বাড়ি গিয়ে, তথ্য যাচাই শুরু করেছে। জানাযায় গত ৩ নভেম্বর এক নির্দেশিকা জারি করে জেলার সমস্ত বিডিওদের রিপোর্ট জমা দিতে বলেছিলেন জেলাশাসক আয়েশা রানি।

নির্দেশিকাতে বলা হয়েছে গ্রাম পঞ্চায়েত স্তরে গ্রাম পঞ্চায়েত কর্মী ও ব্লক স্তরে কোনও এক্সটেনশন অফিসার দিয়েই তথ্য যাচাই করতে হবে। বর্তমানে উপভোক্তার বাসস্থানের চেহারা ও বাসস্থানের ছবি তুলে আপলোড করতে হবে পোর্টালে। এই আবাস যোজনার বাড়ি পাওয়া নিয়ে একাধিক ভুরি ভুরি অভিযোগ উঠেছিল কিছুদিন আগে, যাদের দোতলা তিনতলা বাড়ি রয়েছে তাদেরও আবাস যোজনা প্রকল্পে নাম রয়েছে। তাই এবার সঠিকভাবে গরিব মানুষের হাতে আবাস যোজনার বাড়ি তুলে দেওয়ার জন্যেই জেলা শাসকের এই নির্দেশ। তথ্য অনুযায়ী পশ্চিম মেদিনীপুর জেলার ২১ টি ব্লকের ব্লক ভিত্তিক কোন ব্লকে, কোন অফিসারেরা তথ্য যাচাই করবে তারও নির্দেশিকা পাঠানো হয়েছে।

জানা যায়, জেলার মতো ঘাটাল মহকুমায় পাঁচটি ব্লকের ৯২ হাজার ১৫৮ জন উপভোক্তার নাম পাঠানো হয়েছিল। জেলা প্রশাসন সূত্রে জানা গিয়েছে, ঘাটাল মহকুমায় পাঁচটি ব্লকের পাঠানো তালিকা থেকে বাদ পড়েছে ২২ হাজার ৬৯৮ টি নাম। বাকি ৬৯ হাজার ৪৬০ টি নাম যাচাই করবেন আধিকারিকরা। সেই মতোই প্রতিনিয়ত সকাল-সকাল এলাকায় ঘুরে বেড়াচ্ছেন ব্লকের বিডিওরা। তেমনই অন্যান্য দিনের মতো আজও চন্দ্রকোণা-২ ব্লকের বিডিও অমিত ষোষ এলাকায় এলাকায় ঘুরছেন।

ঘাটাল মহকুমার সমস্ত আপডেট তে যুক্ত হন আমাদের সাথে!

‘স্থানীয় সংবাদ’ •ঘাটাল •পশ্চিম মেদিনীপুর-৭২১২১২ •ইমেল: [email protected] •হোয়াটসঅ্যাপ: 9933998177/9732738015/9932953367/9647180572/9434243732 আমাদের এই নিউজ পোর্টালটি ছাড়াও ‘স্থানীয় সংবাদ’ নামে একটি সংবাদপত্র, MyGhatalমোবাইল অ্যাপ এবং https://www.youtube.com/SthaniyaSambad ইউটিউব চ্যানেল রয়েছে।