বীরসিংহের সার্বিক উন্নয়ন নিয়ে বিশেষ পরিকল্পনা নিচ্ছে প্রশাসন

কুণাল সিংহরায়, স্থানীয় সংবাদ, বীরসিংহ: বীরসিংহের উন্নয়নে মাস্টারপ্ল্যান এর নির্দেশ ডি এমের ঃ২৯শে সেপ্টেম্বর বীরসিংহে ক্যাবিনেট মন্ত্রী মানস রঞ্জন ভূঁইয়ার প্রশাসনিক বৈঠকে আলোচনা হয়েছিল বীরসিংহ গ্রাম ঘুরে উন্নয়নের খুঁটিনাটি সরোজমিনে দেখা।সেইমত পশ্চিম মেদিনীপুর এর জেলাশাসক আয়েষা রাণী এ বীরসিংহ এলেন সঙ্গে অতিরিক্ত জেলাশাসক (পঞ্চায়েত) কুহুক ভূষন।একটি মিটিং ও করলেন বিদ্যাসাগর স্মৃতিমন্দিরে।ছিলেন ঘাটালের মহকুমাশাসক সুমন বিশ্বাস, বিডিও সঞ্জীব দাস,সাংসদ প্রতিনিধি রামপদ মান্না, পঞ্চায়েত সমিতির সহসভাপতি দিলীপ মাজি, শিক্ষা কর্মাধ্যক্ষ বিকাশ কর, খাদ্য কর্মাধ্যক্ষ প্রশান্ত রায় প্রমুখ।মিটিং এ বীরসিংহকে প্রকৃতই আদর্শ গ্রাম এবং পর্যটন কেন্দ্র হিসেবে গড়ে তুলতে মাস্টার প্ল্যান তৈরির নির্দেশ দেন তিনি বীরসিংহ উন্নয়ন পর্ষদের সচিব তথা ঘাটালের মহকুমাশাসক সুমন বিশ্বাসকে।মাস্টার প্ল্যান এ থাকছে বীরসিংহের যাবতীয় কাজ-রাস্তা,কালভার্ট,পথবাতি,পানীয় জলের সুব্যাবস্থা,দুটি আইসিডিএস এর সৌন্দর্যকরণ,পর্যটকদের জন্য ডাইনিং কাম কিচেন,হোমস্টে,লাইট এন্ড সাউন্ড সিস্টেম, নির্মীয়মান বড়োপুকুর পার্কে চারটি কটেজ নির্মান,৫০০ আসনের অডিটোরিয়াম প্রভৃতি। মিটিং সেরে তিনি সোজা যান পার্কের কাজ পরিদর্শনে, কথা বলেন স্থানীয়দের সাথে। এরপর তিনি জনস্বাস্থ্য কারিগরি দপ্তরের বাংলো ঘুরে দেখেন,এরপর তাঁর কনভয় গ্রামের ভেতরে,শেষে হেরিটেজ বিল্ডিং। তিনি স্থানীয় সংবাদকে ঝরঝরে পরিষ্কার বাংলায় বলেন যা কিছু উন্নয়ন সেটা বীরসিংহকে কেন্দ্র করেই।আগে বীরসিংহ, তারপরে পঞ্চায়েত, পঞ্চায়েত সমিতি। মুখ্যমন্ত্রীর নির্দেশমত আগে বীরসিংহের কাজ, সেজন্য মাস্টার প্ল্যান তৈরি করা ও পরবর্তী বিএসডিএ র সভায় সিদ্ধান্ত নেওয়া হবে যা সাংসদ দেব এর উপস্থিতিতে হবে নভেম্বর মাসে।বীরসিংহ গ্রাম পঞ্চায়েত এর পক্ষ থেকে বিভিন্ন প্রস্তাব জমা দেওয়া হয় ডিএম কে।প্রায় পাঁচ ঘন্টা ধরে খুঁটিনাটি দেখে যখন খেতে এলেন তখন ঘড়ি পাঁচটা ছুঁয়েছে। বিরিয়ানির প্যাকেট থাকলেও তা যে ঠান্ডা হয়েগেছে বুঝতে বাকি নেই পুলিশ ও কনভয়ের চালকদেরও।

ঘাটাল মহকুমার সমস্ত আপডেট তে যুক্ত হন আমাদের সাথে!

‘স্থানীয় সংবাদ’ •ঘাটাল •পশ্চিম মেদিনীপুর-৭২১২১২ •ইমেল: [email protected] •হোয়াটসঅ্যাপ: 9933998177/9732738015/9932953367/9647180572/9434243732 আমাদের এই নিউজ পোর্টালটি ছাড়াও ‘স্থানীয় সংবাদ’ নামে একটি সংবাদপত্র, MyGhatalমোবাইল অ্যাপ এবং https://www.youtube.com/SthaniyaSambad ইউটিউব চ্যানেল রয়েছে।