বীরসিংহে নানান অনুষ্ঠানের মধ্যে সাড়ম্বরে পালিত হল বিদ্যাসাগরের ২০২ তম জন্মদিবস

নিজস্ব সংবাদদাতা, স্থানীয় সংবাদ, ঘাটাল: আজ ২৯ সেপ্টেম্বর (বাংলা ১২ আশ্বিন) পণ্ডিত ঈশ্বরচন্দ্র বিদ্যাসাগরের ২০২ তম জন্মদিবস। বীরসিংহ গ্রামে নানান অনুষ্ঠানের মাধ্যমে মহাসাড়ম্বরে পালিত হল বিদ্যাসাগরের জন্মদিন। সমস্ত কিছুর দায়িত্বে ছিলেন বীরসিংহ ডেভেলপমেন্ট অথরিটির কর্মকর্তারা। প্রাকৃতিক দুর্যোগের ঘনঘটাকে উপেক্ষা করেই বিভিন্ন অনুষ্ঠানের মাধ্যমে দিনটি উদযাপন করা হয়। প্রভাতফেরি, বিদ্যাসাগর এবং মাতা ভগবতীদেবীর মূর্তিতে মাল্যদানের মাধ্যমে অনুষ্ঠানের সূচনা হয় এদিন। উপস্থিত ছিলেন জেলাশাসক ড. রশ্মি কমল, পুলিশ সুপার দীনেশ কুমার, মন্ত্রী মানসরঞ্জন ভূঁইয়া, শিউলি সাহা,শ্রীকান্ত মাহাতো, এডিএম পিনাকীরঞ্জন প্রধান,মহকুমাশাসক সুমন বিশ্বাস, জেলা তথ্য ও সংস্কৃতি আধিকারিক অনন্যা মজুমদার, মহকুমা তথ্য ও সংস্কৃতি আধিকারিক দেবাশীষ পোড়ে, পিংলার বিধায়ক অজিত মাইতি,দাসপুরের বিধায়ক মমতা ভূইয়া, দাসপুর-২ পঞ্চায়েত সমিতির সহ সভাপতি আশিষ হুদাইত, পশ্চিম মেদিনীপুর জেলা পরিষদের কর্মাধ্যক্ষ কাবেরী চট্টোপাধ্যায়, নির্মল ঘোষ,শ্যামপদ পাত্র,জারিণা ইয়াসমিন, ঘাটাল পঞ্চায়েত সমিতির সভাপতি রূপা মান্না, সহসভাপতি দিলীপ মাজি,সাংসদ প্রতিনিধি রামপদ মান্না, প্রাক্তন বিধায়ক শংকর দোলই, খড়ার পুরসভার প্রশাসক অরূপ রায়, ঘাটাল পঞ্চায়েত সমিতির শিক্ষা কর্মাধ্যক্ষ বিকাশ কর, বীরসিংহ ভগবতী বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক শক্তিপদ বেরা প্রমুখ।

জেলাশাসক ড. রশ্মি কমল তাঁর ভাষণে বলেন, গতকালই মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় বীরসিংহ ডেভালাপমেন্ট অথরিটির জন্য ৩কোটি ১৯ লক্ষ টাকা বরাদ্দ করেছেন। এই টাকা দিয়ে গ্রামের ভেতরের রাস্তা নির্মাণ ও সংস্কার,পথবাতি, ৩৬টি অঙ্গনওয়াড়ি কেন্দ্র ও শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানের সংস্কার,স্মৃতি মন্দিরের প্রাচীর ও নতুন কক্ষ নির্মাণ করা হবে। বিকাল চারটে থেকে পরিবেশিত হয় জেলা তথ্য ও সংস্কৃতি দপ্তরের উদ্যোগে ঝুমুর গান,বাউল গান এবং ছৌনাচ।

 

ঘাটাল মহকুমার সমস্ত আপডেট তে যুক্ত হন আমাদের সাথে!