পরিচয় মিললো শিশুর,ছোট্ট রিয়াকে ফিরে পেতে ছুটলেন মা

সৌমেন মিশ্র ও শ্রীকান্ত ভুঁইয়া, স্থানীয় সংবাদ, ঘাটাল:  আজ নিজের মেয়েই যেন পর তাকে ফিরে পেতে মাকে প্রমান দিতে হচ্ছে একের পর এক। চোখের জলে রাত কাটল মায়ের। আজ সোমবারের সকালে মায়ের আশা মেয়েকে আবার কোলে ফিরে পাবেন। যদিও ১ বছর ৩ মাসের ছোট্ট রিয়া এখন মাছ বিক্রেতা রেবতী দেবীরে সাথে অনেকটাই মানিয়ে নিয়েছে ঘাটাল হাসপাতালের বিছানায়। রাতে ভালো ঘুমও হয়েছে। তবে খেলার মাঝেই রিয়াও তার মা সীমাকে খুঁজছে। সত্যি কথা বলতে কী বাবার একটা ছোট্টো ভুল আজ এই ছোট্ট রিয়াকে তার মায়ের থেকে আলাদা করেছে। নিজের মেয়েকে নিজের কোলে ফির পেতে মা প্রশাসনের দুয়ারে দুয়ারে ঘুরছেন।

 

হ্যাঁ আমরা কথা বলছি সেই ছোট্টো শিশুটিকে নিয়েও যাকে ১৬ অক্টোবর শনিবার ঘাটাল পাঁশকুড়া বাসে এক মাছ বিক্রেতার কোল চাপিয়ে এক অজ্ঞাত পরিচয় ব্যক্তি বাস থেকে নেমে যায়। আর সেই শিশুটিকে নিয়ে বর্তমানে সেই মাছ বিক্রেতা রেবতী ভুঁইঞা ঘাটাল হাসপাতালে। ছোট্ট এই রিয়া আসলে দাসপুর থানার নবীন মানুয়ার শ্রীমন্ত ও সীমা রাউতের একমাত্র সন্তান। আজ ১৮ অক্টোবর সোমবারের সকালে রিয়ার নানান নথি দেখিয়ে এমনটাই দাবি করছেন মা সীমা রাউত। সীমাদেবী জানাচ্ছেন,পুজোর সময় কয়েকদিন খড়গপুর সদর থানা এলাকার গোকুলপুরে বাপের বাড়ি গিয়েছিলেন ছোট্ট রিয়াকে নিয়েই। ১৬ অক্টোবর রিয়ার বাবা শ্রীমন্ত তাদের বাড়ি ফিরে আসতে চাপ দেয়। সীমা দেবী রাজি না হওয়ায় শ্রীমন্ত জোর করে রিয়াকে নিয়ে বাড়ির পথে রওনা দেয়। রাস্তায় ঘাটাল গামী বাসে উঠে জগন্নাথপুরের রেবতী দেবীর কোলে দিয়ে সামনের স্টেপেজে নেমে যায়। রেবতীদেবী জানান শিশুটিকে যখন তাঁরা কোলে দেন তখন ওই ব্যক্তি মদ্যপ অবস্থায় ছিলেন। অন্যদিকে নবীম মানুয়ায় রিয়ার বাড়ির পাড়া প্রতিবেশীদেরও বক্তব্য মাত্র বছর তিনেক বিয়ে হয়েছে। শ্রীমন্ত তেমন কিছু কাজও করে না। প্রায় সময়ই মদ্যপ অবস্থায় পড়ে থাকে। মা সীমাকে এই কন্যা সন্তানকে বড় করে তুলতে একাই সব দায়িত্ব নিতে হচ্ছে। রিয়াকে নিয়ে আসার পর রিয়ার খোঁজা চালায় মা,সমস্ত আত্মীয়স্বজনের বাড়িতেও যায়,মেলেনি একমাত্র মেয়েকে। অবশেষে ১৭ অক্টোবর রবিবার জানতে পারেন ছোট্ট রিয়া পুলিশের অধীনে ঘাটাল হাসপাতালে আছে। মেয়েকে নিজের কোলে ফিরে পিতে এখন আকুল আকুতি মেয়ের। কিন্তু ঘটিনার দিন থেকেই বাবা শ্রীমন্ত উধাও। সমস্ত নথি নিয়ে সীমা রাউত আজ সোমবারের সাত সকালেই রিয়াকে ফিরে পেতে রওনা দিয়েছেন। এখন দেখার আইনের পথে মা তার একমাত্র মেয়েকে কখন বুকে ফিরে পায়।

ঘাটাল মহকুমার সমস্ত আপডেট তে যুক্ত হন আমাদের সাথে!

‘স্থানীয় সংবাদ’ •ঘাটাল •পশ্চিম মেদিনীপুর-৭২১২১২ •ইমেল: [email protected] •হোয়াটসঅ্যাপ: 9933998177/9732738015/9932953367/9647180572/9434243732 আমাদের এই নিউজ পোর্টালটি ছাড়াও ‘স্থানীয় সংবাদ’ নামে একটি সংবাদপত্র, MyGhatalমোবাইল অ্যাপ এবং https://www.youtube.com/SthaniyaSambad ইউটিউব চ্যানেল রয়েছে।