দাসপুরে রাতে জোর করে বাল্যবিবাহ? বিয়ে রুখে দিল প্রশাসন

নিজস্ব সংবাদদাতা: শনিবার প্রেম করতে গিয়ে ঘাটাল এলাকায় প্রেমিকার পরিবারের হাতে ধরা [‘স্থানীয় সংবাদ’-এর সমস্ত কিছু জানতে এখানে ক্লিক করুন] পড়ে নাবালক প্রেমিক প্রেমিকা। ওই রাতেই নাবালিকার পরিবার তাদের তুলে এনে বলপূর্বক বিয়ে দিতে চায়। ঘটনার খবর পেয়ে দাসপুর পুলিশকে নিয়ে ঘটনাস্থলে পৌঁছান দাসপুর-১ ব্লকের জয়েন্ট বিডিও আশিক বিশ্বাস। উভয় পরিবারকে বুঝিয়ে নাবালক প্রেমিক প্রেমিকাকে তাদের বাড়ি পাঠানো হয়। ঘটনা দাসপুর থানার মামুদপুরের কসবা এলাকার। অভিযোগ, সেখানেই শনিবার রাতে বলপূর্বক দুই নাবালক প্রেমিক প্রেমিকার বিয়ে দেওয়ার চেষ্টা চলছিল। আজ ১৭ জুলাই রবিবার জয়েন্ট বিডিও আশিক বিশ্বাস জানান, প্রশাসনের হস্থক্ষেপে এই বিয়ে রুখে দেওয়া গেলেও এলাকাবাসীর চাপে বা পরিবারের চাপে অনেক সময়ই এমন বিয়ে হচ্ছে। এমন ঘটনা নজরে এলে সরাসরি প্রশাসন বা চাইল্ড লাইনে জানালে এমন বিয়ে রোখা যেতে পারে। বিয়ের জন্য পাত্রের বয়স ২১ এবং পাত্রীর বয়স ১৮ হওয়া আবশ্যক। এই বয়সের আগে বিয়ে মানে শারীরিক ভাবে তাদের মধ্যে সমস্যা ডেকে আনা। যারফল জীবনহানি পর্যন্ত গড়াতে পারে। তিনি আরও জানান, রাজ্য সরকারের তরফে মেয়েদের বয়সের আগে এমন বিয়ে রুখতে এবং উচ্চ শিক্ষার স্বার্থে কন্যাশ্রী যুবশ্রীর মতো একাধিক প্রজেক্ট বা প্রকল্প আছে। আর যারা বলপূর্বক ছেলে মেয়েদের বিয়ে দেবার চেষ্টা করছেন তাঁদেরকেও সচেতন করেছেন আশিকবাবু।

ঘাটাল মহকুমার সমস্ত আপডেট তে যুক্ত হন আমাদের সাথে!

‘স্থানীয় সংবাদ’ •ঘাটাল •পশ্চিম মেদিনীপুর-৭২১২১২ •ইমেল: [email protected] •হোয়াটসঅ্যাপ: 9933998177/9732738015/9932953367/9647180572/9434243732 আমাদের এই নিউজ পোর্টালটি ছাড়াও ‘স্থানীয় সংবাদ’ নামে একটি সংবাদপত্র, MyGhatalমোবাইল অ্যাপ এবং https://www.youtube.com/SthaniyaSambad ইউটিউব চ্যানেল রয়েছে।