শিবের জলঢালাতেও করোনা অতিমারী আঘাত হেনেছে, দাসপুরের দুটি মন্দিরের চিত্র দেখলেই তা পরিষ্কার হয়ে যাবে

তৃপ্তি পাল কর্মকার: দাসপুর থানা এলাকার দুটি বিখ্যাত শিব মন্দিরের চিত্র দেখুন। উপরের গুলি এবছরের। আর নিচেরগুলি গত বছরের। চিন থেকে উদ্ভুত করোনা ভাইরাস বদলে দিল গ্রামবাংলার চিরাচরিত রীতিনীতি আচার অনুষ্ঠানের। এটা দাসপুরের ভূতনাথ শিবমন্দিরের গত বছর অর্থাৎ ২০১৯ সালের ছবি। দেখতে পাচ্ছি প্রচুর ভক্ত জল ঢালতে এসেছেন। প্রচণ্ড ভিড় ভাট্টা। ছোটোখাটো দোকানদানিও বসেছে। সেখানে জল ঢেলে কেনাকাটা করছেন মানুষ। আর এই ছবিটাও দাসপুরের এক জনপ্রিয় শিব মন্দির ঝাড়েশ্বর শিবের জল ঢালার ভিড়ের ছবি। এটিও গত বছরের। দেখতে পাচ্ছি একই দৃশ্য। জলঢালার জন্য লম্বা লাইন ভক্তদের।
এবছরের চিত্র দেখুন। আজকের চিত্র সম্পূর্ণ বিপরীত। আজ জল ঢালার চেনা ভিড়টা দুই জায়গাতেই একদম নেই। প্রতিবছর ত্রিশ পঁয়ত্রিশ হাজার ভক্ত জল ঢালেন ভূতনাথে। ঝাড়েশ্বরেও প্রচুর ভক্ত আসেন।জল ঢালা উপলক্ষ্যে দুই মন্দির চত্বরে একটাও দোকানদানিও বসেনি। বিশ্বজুড়ে চলছে করোনা ভাইরাসের অতিমারীর প্রকোপ। সেই জন্য এবছর জল ঢালার জমায়েতে নিষেধাজ্ঞা বহাল রয়েছে। তাই সরকারের নির্দেশ মতো এবছর দুটি মন্দির চত্বরে চলছে পুলিশের টহল। ভূতনাথের পুরোহিত লক্ষ্মীশঙ্কর চক্রবর্তী বললেন, করোনা অতিমারির জন্য এবছর কেউ জল ঢালতে আসছেন না। তাই মন্দির চত্বর একেবারে ফাঁকা।

সব খবর পড়তে আমাদের WhatsApp গ্রুপে যুক্ত হোন – এখানে ক্লিক করুন