ওষুধ দেওয়ার আছিলায় যৌন লালসা,দাসপুরে গ্রেপ্তার বিক্ষোভে গ্রামবাসী

ওষুধ দেওয়ার আছিলায় যৌন লালসা। তারই শিকার হতে হচ্ছিল গ্রামের নিরীহ মহিলাদের। লোকলজ্জার ভয়ে দীর্ঘ প্রায় ৮মাস পর বিষয়টি জানাজানি হতেই গ্রামবাসীরা সমস্ত বিষয় পুলিশকে জানায়। পুলিশ আটক করে এক অভিযুক্তকে। অপর এক অভিযুক্তের গ্রেপ্তারের দাবিতে আজ শনিবারও বিক্ষোভে গ্রামবাসীরা।

ঘটনা দাসপুর থানার নন্দনপুর ১ গ্রাম পঞ্চায়েত এলাকার বাজুয়া গ্রামের। ওই গ্রামের এক মুসলিম সদস্য তুকতাক, টোটকা এসব বিদ্যা শেখেন দাসপুরেরই বকুলতলা এলাকার তাঁর এক মুসলিম গুরুর থেকে। এলাকাবাসীদের থেকে জানা গেছে প্রায় ৮মাস আগে ওই গ্রামের এক নির্জন জায়গায় গুরুকে নিয়ে শিষ্য এক আস্তানা বাঁধে। গ্রামবাসী বিশেষ করে মহিলারা তাদের সাধারাণ সমস্যার পাশাপাশি গোপন সমস্যা নিয়ে ওই আস্তানায় যেতে থাকলে অভিযোগ তাদেরকে মাঝে মধ্যেই যৌন হেনস্থার শিকার হতে হত।

কিন্তু লোকলজ্জার ভয়ে তা অনেকেই লুকিয়ে যেতেন। কিন্তু বিষয়টি জানাজানি হতেই শুক্রবার ৭ আগস্ট গ্রামবাসীরা দাসপুর থানায় অভিযোগ জানালে,ওইদিনই গুরুকে আটক করে দাসপুর পুলিশ।

আজ শনিবার আবার গ্রামবাসীরা শিষ্যর বাড়ি ঘিরে বিক্ষোভ দেখায়। তাদের দাবি গ্রেপ্তার করতে হবে শিষ্যকেও। পরিস্থিতি সামাল দিতে ঘটনাস্থলে পৌঁছায় দাসপুর পুলিশ। অপর অভিযুক্ত পলাতক। এখন দেখার আস্তানার আড়ালে জমে ওঠা কলঙ্ক থেকে মুক্ত হয় কিনা দাসপুরে বাজুয়া। ব্যুরো রিপোর্ট স্থানীয় সংবাদ ঘাটাল।

ঘাটাল মহকুমার সমস্ত আপডেট তে যুক্ত হন আমাদের সাথে!

‘স্থানীয় সংবাদ’ •ঘাটাল •পশ্চিম মেদিনীপুর-৭২১২১২ •ইমেল: [email protected] •হোয়াটসঅ্যাপ: 9933998177/9732738015/9932953367/9647180572/9434243732 আমাদের এই নিউজ পোর্টালটি ছাড়াও ‘স্থানীয় সংবাদ’ নামে একটি সংবাদপত্র, MyGhatalমোবাইল অ্যাপ এবং https://www.youtube.com/SthaniyaSambad ইউটিউব চ্যানেল রয়েছে।