করোনার মোকাবিলায় দাসপুরে দিন-রাত এক করছে পুলিসের সাথে ভি আর পি

লকডাউনের আগেই সারা মহকুমার পাশাপাশি দাসপুর ১ ব্লকের বিভিন্ন গ্রাম পঞ্চায়েত এলাকার বহু মানুষ গ্রামে ফিরেছেন। এঁরা হলেন ভিন দেশ বা রাজ্যে থাকা স্বর্নশিল্পী এবং অন্যান্য কাজে যারা বাইরে থাকেন তাদের মধ্যে অনেকেই স্বাস্থ্য পরীক্ষা না করিয়েই হোমকোয়ারেনটাইনে না থেকে পাড়া প্রতিবেশীদের সাথে মেলামেশা করে চলেছেন।

অন্যান্য ব্লকের সাথে এবার দাসপুর ১ সমষ্টি উন্নয়ন আধিকারিকের নির্দেশে ব্লকের ৯০ জন ভিলেজ রিসোর্স পারসনস বা ভি আর পি সাথে সেভিক ভলেন্টিয়াররা সেই সমস্ত বাইরে থেকে আসা ব্যক্তিদের নামের তালিকা তৈরি করে তাদের বাড়ি বাড়ি পৌঁছে যাচ্ছেন।

বাড়ি পৌঁছে খতিয়ে দেখছেন তাদের শারিরীক অবস্থা,স্বাস্থ্য পরীক্ষা না করিয়েই সবার সাথে একই সাথে আছেন কিনা। তেমন বুঝলে সরাসরি পাঠাচ্ছেন হাসপাতালে।

দাসপুরের এক ভি আর পি রমেন মণ্ডল জানান,এলাকায় ঘুরে এমন বহু বহিরাগতদের পাওয়া যাচ্ছে যারা কাজের তাগিদে বাইরে থাকেন, কয়েকদিন আগেই ফিরেছেন কিন্তু হোমাকোয়ারেনটাইনে না থেকেই পরিবারের সাথে এমনকি বাজার হাটেই বেরিয়ে যাচ্ছেন। দাসপুরের আনন্দগড়,রামদেবপুর,হরিরামপুর ছাড়াও একাধিক গ্রামে তাঁরা সকাল থেকে সন্ধ্যে পর্যন্ত ঘুরে এ ধরনের মানুষদের সচেতন করে চলেছেন।