তৃপ্তি পাল কর্মকার: বিদ্যালয়ের মিড-ডে মিল পরিদর্শনে গিয়েছিলেন বিডিও। স্কুলে গিয়ে মেঝেতে বসে ছাত্রছাত্রীদের সঙ্গেই মিড-ডে-মিল খেলেন দাসপুর-২ বিডিও অনির্বাণ সাহু। শুক্রবার ৫ জুলাই এমনই দৃশ্য প্রত্যক্ষ করলেন দাসপুর-২ ব্লকের কুল্টিকুরি ক্ষীরোদাময়ী হাইস্কুলে।  বিডিও মেঝেতে বসে ছাত্রছাত্রীদের সঙ্গে মিড-ডে-মিল খাচ্ছেন দেখে সৌজন্যবশত কয়েক জন শিক্ষকও তাঁর পাশেই সঙ্গে মিড-ডে-মিল খেতে বসে পড়েন। কোনও রকম দ্বিধা না করেই বিডিও ডিম-আলুর ঝোল তরকারি দিয়ে পেট ভরেই ভাত খান।   তবে বিডিওর মতো এক জন আধিকারিক পড়ুয়াদের পাশে বসে ডিমের ঝোল দিয়ে ভাত খাচ্ছেন দেখে অবাক হয়ে গিয়েছিল পড়ুয়ারা। প্রথমে তারা ‘অচেনা লোক’টি দেখে অবাক হয়। পরে পরিচয় জানতে পেরে বিস্ময়ে হাঁ করে তাকিয়ে থাকে।
মিড-ডে-মিল খাবার পরীক্ষা করার জন্য শিক্ষক-শিক্ষিকাদেরও খেতে হয়। তাই বিডিও মিড-ডে-মিল খেতেই পারেন। ওই স্কুলের প্রধান শিক্ষক সমীরণ চট্টোপাধ্যায় বলেন, কিন্তু বিডিও আমাদের স্কুলে এসে মেঝেতে বসে সবার সঙ্গে মিড-ডে-মিল খাওয়ায় আমরা অত্যন্ত আপ্লুত। ♦ছবি: গৌর পাত্র(রানীচক)

- Inline advertisement -

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here