ঘাটালের শিলাবতী নদীতে ছাড়া হল ৬০ হাজার চারামাছ

মনসারাম কর: নদীতে মৎস্য সঞ্চার প্রকল্পের আওতায় চারামাছ ছাড়া হল ঘাটালের শিলাবতী নদীতে। নদীতে মাছের সংখ্যা বাড়ানোর উদ্দেশ্যে আজ ১১ সেপ্টেম্বর পশ্চিম মেদিনীপুর জেলা মৎস্য দপ্তরের উদ্যোগে প্রায়

 

তিন লক্ষ টাকা খরচ করে এই চারামাছ ছাড়া হয়। রুই, কাতলা, মৃগেল মিলিয়ে মোট চারামাছের সংখ্যা ছিল ৬০ হাজার। ঘাটালের ঐতিহ্যময় ভাষাপুলের উপর দাঁড়িয়ে এই চারামাছ দফায় দফায় নদীর জলে ছেড়ে দেওয়া হয়। উপস্থিত ছিলেন মৎস্য দপ্তরের ওয়েস্টার্ন জোনের উপ মৎস অধিকর্তা সিদ্ধার্থ সরকার, পশ্চিম মেদিনীপুরের সহ মৎস্য অধিকর্তা পিয়াল সরকার, ঘাটালের মহকুমা শাসক অসীম পাল, ঘাটাল পুরসভার চেয়ারম্যান বিভাস ঘোষ,  ঘাটাল ব্লকের ফিশারি অফিসার দেবাশিস চক্রবর্তী, জেলা পরিষদের মৎস্য কর্মাধ্যক্ষ জারিনা ইয়াসমিন সহ ঘাটাল পঞ্চায়েত সমিতির অনেকেই। এই নিয়ে সহ মৎস্য অধিকর্তা পিয়াল সরকার বলেন, দিনের পর দিন নদীতে মাছের সংখ্যা কমে যাচ্ছে, উন্নত মানের গাঁথি জালের সাহায্যে নদীর মাছ ধরে নেওয়ার ফলে নদীতে মাছের স্বাভাবিক সঞ্চয়  কমছে, সেজন্য প্রত্যেক বছরই বিভিন্ন ব্লকে এটা হয়ে থাকে, ঘাটালে এর আগে হয়নি তাই এই বছর ঘাটালকেই বেছে নেওয়া হয়েছে, আর শিলাবতী নদীতে নৌকা নিয়ে বহু মৎস্যজীবী মাছ ধরে জীবিকা পালন করেন তাই একপ্রকার তাদের কথা ভেবেই এই নদীর উপর ঐতিহাসিক ভাষাপুল থেকেই আমরা আজকের কাজ সম্পন্ন করলাম।