তরকারির সঙ্গে টিকটিকি সোনাখালি হাসপাতালে

রবিবার রাতে সোনাখালি হাসপাতালে রোগীদেরকে দেওয়া তরকারি থেকে মরা- সেদ্ধ টিকটিকি পাওয়া গেল। ভাতের সঙ্গে চামচে করে তরকারি তুলতে গিয়ে একটি আস্ত টিকটিকি প্রায় মুখের মধ্যে ঢুকিয়ে ফেলেন গোছাতি গ্রামের কার্তিক সামন্ত। কার্তিকবাবু আগুনে দগ্ধ রোগী। তাঁর এক পরিচিত সুমিত ঘোড়ই বলেন, ওই রাতে রোগীদের ভাতের সঙ্গে ঢ্যাঁড়সের তরকারি দেওয়া হয়। দু-চার চামচ তরকারি খাওয়ার পর ফের এক বার তরকারি মুখে তুলতে গিয়েই কার্তিকবাবু ওই টিকটিকিটি দেখতে পান। সঙ্গে সঙ্গে চামচ সহ টিকটিকিটি নার্সদের দেখানো হলে তারা কার্তিকবাবুর কাছ থেকে খাবারটি সরিয়ে অন্য খাবার দেন। ততক্ষণে অন্যান্য রোগীদের ওই টিকটিকি সেদ্ধ তরকারি দিয়ে ভাত খাওয়া প্রায় শেষের দিকে। অন্যান্য রোগীরা  খাবারের সঙ্গে মরা টিকটিকির কথা শুনেই আঁতকে ওঠেন।  ঘটনাটির সত্যতা স্বীকার করেছেন ঘাটাল মহকুমা সহকারি মুখ্য স্বাস্থ্যাধিকারিক কুণাল মুখোপাধ্যায়। তিনি অবশ্য বলেন, কার্তিকবাবু তরকারি খাওয়ার আগেই ওই টিকটিকি দেখতে পান। বিষয়টি জানাজানি হলে অন্যান্য রোগীরাও ওই তরকারি খাননি। • ছবিটি পাঠিয়েছেন সুমিত ঘোড়ই।

Recommend to friends
  • gplus
  • pinterest

About the Author

তৃপ্তি পাল কর্মকার

সম্পাদক, ‘স্থানীয় সংবাদ’ • মতামত ও পরামর্শ দেওয়ার জন্য মেল করতে পারেন।
  • gplus

Leave a comment