দুঃস্থদের বিনামূল্যে গান শেখাবেন বৈশাখী হাজরা

 

ঘাটাল মহকুমার দুঃস্থ ছাত্রছাত্রীদের বিনামূল্যে লোকসঙ্গীত শেখাতে চান স্বর-শ্রুতি মিউজিক আকাদেমির কর্ণধার বৈশাখী হাজরা। ঘাটালের স্বর-শ্রুতি মিউজিক আকাদেমির উদ্যোগে, ছুটি কালচারাল ফোরাম ও ঘাটাল পৌরসভার সহযোগিতায় ১৬ এপ্রিল  শিল্পী কালিকাপ্রসাদের স্মরণসভার আয়োজন করা হয়। ওই দিন  ঘাটাল টাউন হলে অনুষ্ঠানে বৈশাখীদেবী দুঃস্থ ছাত্রছাত্রীদের বিনামূল্যে গান শেখানোর পরিকল্পনাটির কথা ঘোষণা করেন। তিনি   ইচ্ছুক দুঃস্থ ছাত্রছাত্রীদের আর্থিক অবস্থার প্রমাণপত্র-সহ স্বর-শ্রুতি মিউজিক আকাদেমির  ঘাটালের অফিসে (মোবাইল নম্বর: ৯৬৪৭৩৬৪৯৩৮) যোগাযোগ করার কথা বলেন।  বৈশাখীদেবী বলেন, লোকসঙ্গীত চর্চা বিকাশের লক্ষ্যেই আমার এই উদ্যোগ।

এক সময় লোকসঙ্গীতে ঘাটাল মহকুমার যথেষ্ট সুনাম ছিল। বর্তমানে এই মহকুমা থেকে লোকসঙ্গীত চর্চা ক্রমশ হারিয়ে যাচ্ছে। প্রকৃত শিক্ষক-শিক্ষিকার অভাবে নতুন প্রজন্মের ছাত্রছাত্রীরা লোকসঙ্গীত শেখার আগ্রহ হারিয়ে ফেলছেন। বৈশাখীদেবী তাঁর নিজের প্রচেষ্টায় লোকসঙ্গীত চর্চায় একটা বিশেষ মাত্রা এনেছেন।  লোকসঙ্গীতে ঘাটাল মহকুমার পুরানো সুনাম ফিরিয়ে আনতেই বৈশাখীদেবীর এই প্রয়াস

প্রসঙ্গত, ওই দিন তথা ১৬ এপ্রিল  বিকেলে কালিকাপ্রসাদের স্মরণসভার অনুষ্ঠানটি শুরু হয়। দুটি পর্বে সম্পন্ন হয় সমগ্র অনুষ্ঠানটি।  প্রথমপর্বে উপস্থিত অতিথিরা কালিকাপ্রসাদের ছবিতে মাল্যদান করেন। দ্বিতীয় র্পবে শুরু হয় সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান। প্রায় রাত ন’টা পর্যন্ত অনুষ্ঠানটি চলে। অনুষ্ঠানের শেষ পর্যন্ত প্রায় সাড়ে তিনশো দর্শক অনুষ্ঠানটি তারিয়ে তারিয়ে উপভোগ করেন।

ওই স্মরণসভায় স্বর-শ্রুতি মিউজিক আকাদেমির পক্ষ থেকে দূরদর্শনের বিখ্যাত লোকসঙ্গীত শিল্পীদের আমন্ত্রণ জানানো হয়েছিল। তারমধ্যে এসেছিলেন রূপসী বাংলা ও আর প্লাস খ্যাত লোকশিল্পী আকাশ লীনা, মৌমিতা দেবনাথ, বীরভূমের শিল্পী বামাচরণ সিংহ, কালারস্ বাংলা ও আর প্লাস খ্যাত লোকশিল্পী শ্রেয়সী চট্টোপাধ্যায়, উত্তরবঙ্গের লোকসঙ্গীত শিল্পী ঋতুপ্রিয়া বন্দ্যোপাধ্যায় প্রমুখ। এছাড়াও স্বর-শ্রুতি আকাদেমির চল্লিশজন ছাত্রছাত্রী লোকসঙ্গীতে অংশ নিয়েছিল। স্থানীয় অতিথিদের মধ্যে ওই দিন উপস্থিত ছিলেন ঘাটালের বিধায়ক শঙ্কর দোলই, ঘাটাল পুরসভার চেয়ারম্যান বিভাস ঘোষ, ঘাটাল কলেজের ভারপ্রাপ্ত অধ্যক্ষ লক্ষ্মীকান্ত রায়, ঘাটাল কলেজের অবসরপ্রাপ্ত অধ্যাপক অসীম চট্টোপাধ্যায়, ঘাটাল পঞ্চায়েত সমিতির সহ সভাপতি দিলীপ মাজী, পশ্চিম মেদিনীপুর জেলা পরিষদের সদস্য পঞ্চানন মণ্ডল, ঘাটালের লায়ন্স ক্লাবের এক্স-প্রেসিডেন্ট সুমন মণ্ডল, বিশিষ্ট ব্যবসায়ী সুশীল দাস প্রমুখ। অনুষ্ঠানে কালিকাপ্রসাদের পছন্দের গানগুলি গাওয়া হয়। সমগ্র অনুষ্ঠানের পরিকল্পনা রূপায়িত করেছেন রবীন্দ্রভারতী বিশ্ববিদ্যালয়ের অধ্যাপক সুজয় চন্দ্র ও স্বর-শ্রুতি মিউজিক আকাদেমির কর্ণধার বৈশাখী হাজরা।

Recommend to friends
  • gplus
  • pinterest

About the Author

তৃপ্তি পাল কর্মকার

সম্পাদক, ‘স্থানীয় সংবাদ’ • মতামত ও পরামর্শ দেওয়ার জন্য মেল করতে পারেন।


  • gplus

Leave a comment